ভালোবাসা নিও

ভালোবাসা নিও যা কিছু তোমার হারাবার আছে ভয়তা হোক আমি অথবা আমার প্রেমশূন্য হৃদয়অতোটা জানি তাৎপর্যপূর্ণ নয় কারও কাছেতবুও কেবল এটুকুই বলার আছে—“কুল্লু শাই-ইন ইয়ারজিউ আলা আসলাহু”প্রিয়, বিচ্ছেদ জেনো দীর্ঘজীবী নয়যতোটা অনন্ত তোমার-আমার পরম হৃদয়ভালোবাসা নিও।

বুদ্ধি বেচে ভাত কিনে খায় যারা

বুদ্ধি বেচে ভাত কিনে খায় যারা রবিন গাইবান্ধার ছেলে। তার বাবা ভাত বেচে বুদ্ধি কিনে খাওয়া চাষবাস করা লোক। ফলে সংসার চলে কর্দমাক্ত খানাখন্দ ভরা মেঠো পথে, বুড়ো বলদে টানা গাড়ির মতো। ধীরে। হেলেদুলে। রবিনের আচরণে আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুণী অধ্যাপকদের […]

যে কথাটি

যে কথাটি যে কথাটি বলতে বাকি এই সুযোগে বলে রাখি আমি তো আর আগের মতো নেই। যা কিছু সব গোপন ছিল কে জানি তা পুড়িয়ে দিল তবুও মনে পোড়ার ক্ষত নেই। প্রশ্ন যদি কারও মনে জাগে আমি তবে কেমন ছিলাম […]

সহজেই

সহজেই সহজেই বাইরে থেকে পড়া যায় যারে ভেতরে তার অন্ধকার বদ্ধ ঘরে ধুলোপড়া মাকড়সার জাল। চোখের দেখায় অতল অন্তহীন দুর্বোধ্য যে জন, ডুব দিয়ে দেখি বেওয়ারিশ শিমুল তুলোর মতন তার মন নিষ্কলঙ্ক নিটোল; ঠিক যেন মায়ের কোলে সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশুটির […]

বিভোর সন্ধ্যা

আলো শেষ হলেই তেমাথা নামে কয়েকঘর জামার রঙ লুটে রাখে কাঙালপনা বেঘোর মন; এমন ত্রিপদী সন্ধ্যায় রয়ে যায় তিরোধান যত কলিকালের মন এখানেই দেখায় সন্ধ্যারও ক্ষত।

কই যাও রে – ভাটিয়ালি গান

  পল্লীগান আমায় খুব টানে। বিশেষ করে ভাটিয়ালি গানের সুর একরকম আচ্ছন্ন করে রাখে আমাকে। “কই যাও রে পদ্মার ঢেউ আমার কথা লইয়া যাও রে” গানটি প্রথম শুনি বেশ ছোটবেলায় বাংলাদেশ বেতারে প্রচারিত মানিক বন্দ্যোপাধায়ের ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ উপন্যাসের গীতিনাট্য […]