যে আশায় বাঁধি খেলাঘর

যে আশায় বাঁধি খেলাঘর বেঁচে থাকবার প্রতি লোভটা দিনদিন যতো বেড়েই চলেছে সেই সঙ্গে বেঁচে না থাকবার শতো কারণ শতো অজুহাত আর যৌক্তিক অথচ দুর্বল চেতনাগুলোও পায়ে চলা পথিকের জীবনতরীটিকে বর্ষায় ভরা নদীতে উন্মত্ত জলের প্রবল ঘূর্ণিপাকের মতো নৈরাশ্যের গভীরতম […]

অবসরের কবিতা

অবসরের কবিতা অবসর— দিনান্তে মিলে গেছে আজ; সব প্রয়োজন গেছে ফুরায়ে। ভুলে গিয়ে সময় আর সমস্ত কাজ সন্ধ্যের ছায়া গায়ে মুড়ায়ে আকাশটা বুকে নিয়ে বহুদিন পর— অবসর! অবসর যাপনের সে কী আয়োজন! মিটে গেছে আজ ওগো সব প্রয়োজন। অবসর! বহুদিন […]

একাকী

একাকী ঘরটা ভীষণ পর হলো তাই ঘরের সঙ্গে আড়ি; অন্ধকারে জাগবো নিশি ফিরবো না আজ বাড়ি। আমার হৃদয় মন্দিরে— আছে স্বপ্ন বন্দিরে, আমি আঁধার-কালো রাত্রি-জাগা পথিক স্বপ্নচারী— ফিরবো না আজ বাড়ি আমার ঘরের সঙ্গে আড়ি, ওগো দেহের সঙ্গে হলো আমার […]

ঘোর

ঘোর নিছক স্বপ্নের ঘোরে চোখ বুজে ছিলে এতোকাল। এতো ভোর দুপুর সন্ধ্যা কি রাত যেন শকুনের লাল চোখে মরে যেতে যেতে বেঁচে থাকা এক যুবতীর নিছক স্বপ্নের ঘোরে স্বপ্নালু একজোড়া চোখ বুজে না যাওয়া সময়ের মতো অনন্ত-অসীম আর নিষুপ্ত-নিষ্প্রাণ— এতো […]

অরূপের প্রতি

অরূপের প্রতি শার্টের সবগুলো বোতাম খুলে ঘরে না ফেরা ভবঘুরে মতন কেউ কেউ যখন সন্ধ্যেবেলার ব্যস্ত- আলোকিত শহরের কোনো এক নির্জন পথে ল্যাম্পোস্টের আধো- আলো আধো- আঁধারের মাঝে দাঁড়িয়ে পাখির ডানার মতো দু’পাশে দু’হাত ছড়িয়ে দেয়; আর আকাশের দিকে তাকিয়ে […]

আশ্চর্য

আশ্চর্য অদ্ভুত! যাপিত জীবন এক— অযাচিত ষোল আনা তার। সবটুকু আজ যতো ভয়-সংশয় লাজ-লজ্জার মুখে ছাই পুড়ে তবে ভাসালুম বুড়িগঙ্গার পচা-কুৎসিত জলে শুধু এইটুকু ভেবে— একদিন আসবেই সেই দিন। আমার-তোমার সব ভালো-মন্দের ভারে ঈশ্বরের দাড়িপাল্লা যাবে ছিঁড়ে!! হায়.. একদিন আসবেই […]